শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন

সফলনারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ অদম্যগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে – ডিসি

????????????????????????????????????

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক (ডিসি)মোহাম্মদ মমিনুর রহমান বলেছেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনা একজন সফল নারী ও নারী সমাজের উন্নয়নের জন্য বিশ্বের কাছে এখন রোলমডেল।তাঁর হাত ধরে বাংলাদেশ অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। নারীদের বাদ দিয়ে দেশের কাংখিত উন্নয়ন কখনো সম্ভব নয়। এ বিষয়টি বিবেচনায় এনে সরকার নারীদের কল্যাণে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টানাক্ষমতায় থেকে নারীর ক্ষমতায়নে বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নেয়ার কারণেএ দেশ ইউরোপিয়ান দেশগুলোর চেয়ে অনেকদুর এগিয়ে গেছে। দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে।করোনার কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ অন্যান্যরা উম্মাদের মতো আচরণ করেছেন। অথচ আমাদের প্রধানমন্ত্রী ঘরে বসে না থেকে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় দিন-রাত পরিশ্রম করার কারণে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের তুলনায় এ দেশ অনেকটা সফল।করোনাকালী যেকোনপরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে জেলা, বিভাগ ও সরকারী বিভিন্ন দপ্তর প্রধানদের সাথে নিয়মিত কথা বলেছেন তিনি। আজ ৮ মার্চ ২০২১ ইং সোমবার সকালসাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম জেলাশিশু একাডেমি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসন,মহিলা বিষয়ক উপ-পরিচালকের কার্যালয়ও জাতী য়মহিলাসংস্থার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত আন্তর্জাতিক নারী দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনিএসব কথা বলেন। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে-“করোনাকালে নারী নেতৃত্ব, গড়বে নতুন সমতার বিশ্ব”। আন্তর্জাতিক নারী দিবসের অনুষ্ঠানে সহযোগিতায় ছিলেন চট্টগ্রামে নারী উন্নয়ন কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট সরকারী-বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবীসংস্থাসমূহ।
তিনিবলেন, নারীরা কখনো পুরুষদের প্রতিদ্বন্ধি নয়। সরকারের আন্তরিকতা ও নিরলস প্রচেষ্টার কারণে যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে নারীরাএখন সব পেশায় সর্ব ক্ষেত্রে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হচ্ছে।আগামী ২০৩০ সালেএসডিজি অর্জন ও ২০৪১ সালের মধ্যে সুখী-সমৃদ্ধ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের উন্নত বাংলাদেশ গড়তে নারী-পুরুষ সকলের অংশগ্রহন জরুরী। নারীর ক্ষমতায়ন শতভাগ নিশ্চিত করতে হলে নারীর প্রতিসহিংসতা, নারী-শিশু নির্যাতন,ইভটিজিং ও বাল্যবিবাহ রোধে সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। পুরুষের পাশাপাশি নারীরা স্বাবলম্বী হলে সমাজ থেকে অন্যায়-অবিচার দূর হবে।
সভায় অন্যান্য বক্তরা বলেন, বর্তমানে নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বের সেরা দশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান। নারী শিক্ষার উন্নয়ন হলে বদলে যাবে সমাজ। সমাজ ও দেশের উন্নয়নে নারীদের অবদান অনেক বেশি। মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে ও নারীদের অনেক আত্মত্যা গরয়েছে। পোশাক শিল্পেও নারীদের অবদান অনস্বীকার্য। একজন নারীকে কখনো খাটো করে দেখা উচিত নয়। জেন্ডার সমতায় বিশ্বের ১৪৪টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ তৃতীয়এবং এ দেশেরঅবস্থান ৪৭তম। এদেশে নারীরা যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা বিশ্বের মধ্যে নজির সৃষ্টি করেছে। প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগেও নারীর ক্ষমতায়ন জড়িত। স্বাবলম্বী হয়ে আর্থিক ও বস্তুগত প্রবৃদ্ধির মাধ্যমেই নারীদের এগিয়ে যেতে হবে।
বক্তারা আরো বলেন, এদেশে নারী- পুরুষের সমতা আছে বলেই দেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। সকলের সম্মিলিত উদ্যোগে ও সমতার ভিত্তিতে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করা গেলে জাতীয় অগ্রগতি ত্বরান্বিত হবে। নারী-পুরুষ ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সরকারের উন্নয়নের মহাসড়কে সবাইকে সামিল হতে হবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এস.এম জাকারিয়ার সভাপতিত্বে ও প্রোগ্রাম অফিসার সালমা পারভীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক নারী দিবসের আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাধবীবড়ুয়া। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের সাবেকউপ-পরিচালক অঞ্জনা ভট্টাচার্য,শিশু একাডেমির জেলা শিশুবিষয়ক কর্মকর্তা নূরুল আবছা রভূঁঞা,জাতীয় মহিলা সংস্থার সদস্য কল্পনা লালা, বেসরকারী উন্নয়নসংস্থা ইলমা’র প্রধাননির্বাহী জেসমিন সুলতানা পারু, ইউনিসেফ’র শিশু সুরক্ষা কর্মকর্তা ফ্লোরা জেসমিন দীপা ও অর্জন মহিলাসংস্থা সভানেত্রী আবিদাআজাদ।আলোচনা সভায় চট্টগ্রামমহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরসহ বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী ও নারী উন্নয়ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com