বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:১৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম
সিএন্ডএফ এজেন্টস নির্বাচনে সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোটের আত্বপ্রকাশ ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপন উপলক্ষ্যে চসিকের “ওরিয়েন্টশন ও পরিকল্পনা সভা” চিকিৎসার সুযোগ না দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে এত আঘাতের পরেও খালেদাকে সুযোগ দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর জাহাজ ‘তুলসা’ ভিড়লো চট্টগ্রাম বন্দরে আবরার হত্যা: ২০ জনের ফাঁসি, ৫ জনের যাবজ্জীবন প্রতিবন্ধীদের জীবনমান উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে উদ্যোগী হতে হবে নগরীতে ভূমিকম্প সহনীয় আবাসন নির্মাণ করার আহবান মেয়রের নগরীতে এবার ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ ১০ বছরের শিশু একজনের ৫টির বেশি সিম নয়: সংসদীয় কমিটি

মানব কল্যাণে কাজ করলে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন সম্ভব – তাজুল ইসলাম

মানব কল্যাণে কাজ করলে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন সম্ভব । মানুষের কাছে নিরাপদ পানি সরবরাহ করা বড় চ্যালেঞ্জ। শুধু শহর নয় গ্রামেও সুপেয় পানি পৌঁছে দেওয়া বাংলাদেশ সরকারের বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

শনিবার (২৩ নভেম্বর) দুপুর পৌনে ১২টায় রেডিসন ব্লু’র মেজবান হলে আয়োজিত ওয়াসার পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা স্থাপন প্রকল্পের (১ম পর্যায়) পরামর্শ নিয়োগের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে যাত্রা শুরু করে বর্তমান সরকার। টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হলে আমাদের উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, একটি পরিকল্পিত পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় একসময় পানি সংকট তৈরি হয় সিডিএ এবং হালিশহর এলাকায়। পরে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর পানি সংকট নিরসন হয়। এরকম ব্যয়বহুল প্রকল্পের ফলটা যাতে ভালো হয় সে ব্যাপারে সকলকে লক্ষ্য রাখতে হবে। আমি কখনো জাতীয় স্বার্থে আপোষ করি না। চট্টগ্রাম ওয়াসার আরও ৫টি প্রকল্প গ্রহণ করা হবে যার প্রতিটির ব্যয় ৪ থেকে ৫ হাজার কোটি টাকা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে এম ফয়জুল্লাহ, স্থানীয় সরকার ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. জাহিদুল ইসলাম ও মো. ইব্রাহিম, মালেশিয়ার পরামর্শক প্রতিষ্ঠান জেবি এরিঙ্কোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তনুশ্রী আই আর জাহেদ ইবনে আহমেদ লাদেন।

পরামর্শক প্রতিষ্ঠানসমূহ হলো- মালয়েশিয়া ভিত্তিক জেবি অফ এরিঙ্কো এবং বাংলাদেশের বিইটিএস কনসাল্টিং সার্ভিস লিমিটেড, ডেভ কনসালট্যান্ট লিমিটেড, ইনস্টিটিউট অফ ওয়াটার মডেলিং (আইডব্লিউএম)।

তিন হাজার ৮০৮ কোটি ৫৮ লাখ ৭৭ হাজার টাকা ব্যয়ে চট্টগ্রাম ওয়াসা কর্তৃপক্ষ বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে স্যুয়ারেজ প্রকল্প। পুরো নগরকে ৬টি জোনে ভাগ করে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। প্রথম ধাপে ১১টি ওয়ার্ডের ২০ লাখ নগরবাসীর পয়ঃবর্জ্য স্যুয়ারেজ ব্যবস্থার আওতায় আনা হবে।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com