শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:২৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মোস্তফা কর্পোরেশনের পরিচালক শফিককে পাঁচ মাসের কারাদণ্ড এইচএসসি পরীক্ষা শুরু বৃহস্পতিবার তেলের বিশ্ববাজার স্থিতিশীল হলে দেশেও ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী চট্টলবীর মহিউদ্দিন চৌধুরীর জন্মদিন আজ হাফ ভাড়ার দাবীতে নগরীতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তীতে নির্মূল কমিটির মাসব্যাপী অনুষ্ঠান চট্টগ্রাম থেকে শুরু সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলা নিষ্পত্তি করতে হবে ৯০ কার্যদিবসে আমি মাছের ট্রলারে সাগর পাড়ি দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের সুযোগ নেই -পরিবেশ পরিচালক পরীক্ষামূলক পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা আসবে

গুজব বন্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আইনের আওতায় আসছে – তথ্যমন্ত্রী

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানো চরিত্র হনন করা এবং সমাজে অস্থিরতা সৃষ্টি করা এটা বিশ্বব্যাপী সমস্যা। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য আমাদের দেশে বিভিন্ন আইন করেছি। বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন আইন করেছে । কিন্তু ইরোপিয়ান ইউনিয়নসহ বিভিন্ন দেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসত্য তথ্য ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো হলে সার্ভিস প্রোপাইটারকে জরিমানা করার বিধান চালু করছে। আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যদি এ ধরনের গুজব বিভ্রান্তিমুলক খবর পরিবেশন করা হয় তাহলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কর্তৃপক্ষকে জরিমানা করার জন্য আমরা বিধিমালা সংশোধন করতে যাচ্ছি।
বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র, চট্টগ্রাম টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন ও টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে“ বিশ্ব টেলিভিশন দিবস ”২০১৯ উপলক্ষে গোলটেবিল বৈঠক । চট্টগ্রাম ্ বিটিভি জিএম নিতাই কুমার ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ এমপি এই সব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের প্রাইভেট চ্যানেলগুলি বিজ্ঞাপনের উপর নির্ভরশীল। বিজ্ঞাপনের বাজার নির্দিষ্ট। টেলিভিশনের সংখ্যা বেড়েছে এবং বিজ্ঞাপন ভাগ হয়ে গেছে। নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগিতার কারণে বিজ্ঞাপনের মূল্য কমে গেছে। আবার বিদেশে বিজ্ঞাপনগুলি চলে যাচ্ছিল। আমাকে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব দেওয়ার পর দেশের পণ্যের বিজ্ঞাপন যাতে বিদেশে না যায় তার জন্য আইনগত কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। তাই বিদেশে আর দেশে বিজ্ঞাপন যাচ্ছেনা। বছরে ৪/৫ শত শত কোটি টাকার বিজ্ঞাপন দেশের বাইরে চলে যাচ্ছিল, সেটি এখন বন্ধ হয়ে গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচুর বিজ্ঞাপন চলে যাচ্ছে সরকার সেখান থেকে কোন ভ্যাট পাচ্ছে না । সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিতে হলে ভ্যাট দিতে হবে , সেটা বিধান কিভাবে চালু করা যায় তা নিয়ে এরি মধ্যে আমরা আলোচনা করেছি। এনবিআরকে চিঠি দিয়েছি তারা সেটা নিয়ে কাজ করছে ।তাড়াতাড়ি আমরা সমাধানে পৌঁছাতে পারবো।
তিনি আরো বলেন, বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলোতে যারা কাজ করেন তারা মেধাবী। তারা অন্য কোন জায়গায় চাকরিতে গেলে চাকরির নিশ্চয়তা থাকত এবং অবসর জীবনে সংকট বা শঙ্কা থাকতো না । সব প্রাইভেট চাকরিজীবীদের জন্য যেন পেনশন চালু করা যায় সেটা নিয়ে সরকার কাজ করছে।সম্প্রচারখাতে সাংবাদিকরা চাকরি করছে তাদের আইনি সহায়তা প্রয়োাজন। ওয়েজ বোডের্র মাধ্যমে প্রিন্ট মিডিয়া আইনি সুরক্ষা পেলেও টিভি চ্যানেল এই ক্ষেত্রে আইনি সুরক্ষা পাইনি ,আমরা এ বিষয়ে কাজ করছি ।ইতিমধ্যে সম্প্রচার নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে এবং পাশ হলে টেলিভিশন সাংবাদিক আইনি সুরক্ষা পাবে। টেলিভিশন গুলি অর্থ যোগান থাকলে, চলার মত উপার্জন করলে তখন চাকরির অনিশ্চয়তা কেটে যাবে। সম্প্রচার মাধ্যমকে ডিজিলাইসন করার পদক্ষেপ নিয়েছি আগামী জুলাই মাসের মধ্যে আমরা ঢাকা চট্টগ্রাম করতে পারি ,তার জন্য সরকার কাজ করছে। টেলিভিশন সিরিয়া লের জন্য ক্যাবল নেটওয়ার্ক এর কাছে ধরনা দিতে হত। এখন সিরিয়াল করে দেওয়া হয়েছে।
তিনি আরো বলেন ,৬৬ সালে বিটিভি চালু হওয়াার পর কখনো অফিশিয়ালি ভারতে দেখা যায়নি আমি দায়িত্ব নেওয়ার ৬মাসের মধ্যে করতে পেরেছি।এখন ভারতে বিটিভি দেখা যাচ্ছে। বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র আগামী মাস থেকে ১২ ঘন্টা সম্প্রচারে যাবে এবং কয়েক মাসের মধ্যে ক্যাবল টেলিভিশন মাধ্যমে সারাদেশে টেরেস্ট্রিয়াল হিসাবে সম্প্রচার শুরু করবে।
সিটি মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দীন বলেন, দেশকে সবকিছুর উর্দ্ধে রেখে প্রাধান্য দিয়ে আপনারা আপনাদের দায়িত্ব পালন করলে উপকৃত হবেন ।টেলিভিশনের প্রতি মানুষের আস্থা ও বিশ্বাস এবং যোগ্যতা উত্তরোত্তর আরো বৃদ্ধি পাবে সর্বাঙ্গে লাভ হবে প্রিয় বাংলাদেশের। চ্যানেলগুলো নিয়ন্ত্রণে সুযোগ সরকারের নেই। সরকার গাইডলাইন তৈরি করেন গাইডলাইন অনুযায়ী বেসরকারি চ্যানেল পরিচালিত। ওই চ্যানেলগুলো যারা প্রতিষ্ঠা করেন তাদের দৃষ্টিভঙ্গিতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে। তারাা যেভাবে চালাতে চান সেভাবে চালান।
বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেন, ৭২সালে বঙ্গবন্ধু বিটিভিকে জাতীয়করণ ও রামপুরে হস্তান্তর করেন । যদিও ৮০ সালে বিটিভি রঙ্গিন হয়েছে। বিটিভি অসাধারণ একটা ভূমিকা পালন করেছে। বিজ্ঞাপন পিড়াই মানুষ আক্রান্ত। বাংলাদেশ টেলিভিশনকে তো প্রাইভেট টেলিভিশনের মতো বিজ্ঞাপনের না হলে চলে । বিটিভি সরকারের কিছু ম্যাসেজ দিতে পারে বিশেষ করে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেঁয়াজ লবণ ইত্যাদি নিয়ে অথেন্টিক নিউজ দিতে পারে, ততটা বেসরকারী চ্যানেল দিতে পারেনা। বিটিভিতে আরো বেশি মেধাবীর মিলনস্থল করা যায় কিনা এখন ভাবার সময়
আরো বক্তব্য রাখেন, উপ-পরিচালক সংবাদ অনুপ খাস্তগীর ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী বাসসের ব্যুরো প্রধান কলিম সরওয়ার। টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নাছির উদ্দিন তোতা, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শফিকুল আলম সজীবসহ প্রমুখ।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com