বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:২৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম
সিএন্ডএফ এজেন্টস নির্বাচনে সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোটের আত্বপ্রকাশ ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপন উপলক্ষ্যে চসিকের “ওরিয়েন্টশন ও পরিকল্পনা সভা” চিকিৎসার সুযোগ না দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে এত আঘাতের পরেও খালেদাকে সুযোগ দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর জাহাজ ‘তুলসা’ ভিড়লো চট্টগ্রাম বন্দরে আবরার হত্যা: ২০ জনের ফাঁসি, ৫ জনের যাবজ্জীবন প্রতিবন্ধীদের জীবনমান উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে উদ্যোগী হতে হবে নগরীতে ভূমিকম্প সহনীয় আবাসন নির্মাণ করার আহবান মেয়রের নগরীতে এবার ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ ১০ বছরের শিশু একজনের ৫টির বেশি সিম নয়: সংসদীয় কমিটি

বিএনপির বড় বড় নেতা বেশিরভাগই হচ্ছেন দলছুট: তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির বড় বড় নেতা বেশিরভাগই হচ্ছেন দলছুট।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে ভাসানী ঐক্যজোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি আরো বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও অন্য দল করতেন। রিজভী আহমেদও ছাত্রজীবনে অন্য দল করতেন।মওদুদ আহমদ সব দল করেছেন। তাদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলতে চাই, তারা সবাই দলছুট নেতা।বিএনপির বড় বড় নেতা বেশিরভাগই হচ্ছেন দলছুট।

আরও পড়ুন:  ১৭ নভেম্বর মাওলানা ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকী: মাওলানা ভাসানী ও ফারাক্কা লং মার্চ

মওলানা ভাসানীর অনুসারীরা বেশিরভাগই আদর্শ ত্যাগ করে অন্য দলে চলে গেছেন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপির বড় বড় নেতা অনেকেই মওলানা ভাসানীর অনুসারী ছিলেন। যেখানে মওলানা ভাসানীর ক্ষমতার জন্য কোনো লোভ ছিলো না, তার কিছু অনুসারীর এরকম অধঃপতন সত্যি আমাদের পীড়া দেয়।বিএনপির অনেক বড় বড় নেতা যারা মন্ত্রী ছিলেন, যারা আজকে স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং ভাইস চেয়ারম্যান, অনেকেই আছেন যারা মওলানা ভাসানীর দল করতেন, তার অনুসারী ছিলেন।অর্থাৎ ক্ষমতার জন্য জিয়াউর রহমান যখন ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট বিলিয়ে দিলেন, তখন তারা দল ত্যাগ করে বিএনপিতে যোগ দিয়েছিলেন।আবার অনেকে জাতীয় পার্টিতেও যোগ দিয়েছিলেন।অর্থাৎ তারা ক্ষমতার জন্য দল ত্যাগ করেছেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, যারা ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করেন, তারা দীর্ঘদিন ক্ষমতা থেকে দূরে থাকলে প্রচণ্ড কষ্ট হয়।কারণ, তারা ক্ষমতার জন্যই তো রাজনীতি করেন।তারা যখন দেখেন ক্ষমতাসীনরা দেশের উন্নয়ন করছে, মানুষের মধ্যে স্বস্তি এবং শান্তি আছে, প্রতিটি মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন হয়েছে, তখন তাদের গাত্রদাহ হয়।

বিএনপি পেঁয়াজের মধ্যে আশ্রয় নিয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দলছুট নেতারা কয়েকদিন ধরে নানা কথা বলছেন।মির্জা ফখরুল বলেছেন, পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধিতে তারা আজ সারাদেশে বিক্ষোভ করবেন।আমি ধন্যবাদ জানাই, শেষ পর্যন্ত তাদের রাজনীতি খালেদা জিয়ার কোমর আর হাঁটু ব্যথা থেকে বের করে এনে পেঁয়াজের মধ্যে আশ্রয় নিয়েছেন। পেঁয়াজের এই উচ্চমূল্য থাকবে না। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বিদেশ থেকে বিমানে করে পেঁয়াজ আসছে। দেশে উৎপাদিত পেঁয়াজও বাজারে এসেছে। সুতরাং খুব সহসাই পেঁয়াজের দাম কমে যাবে।কারা এই পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির সঙ্গে যুক্ত, তা বের করতে গোয়েন্দারা মাঠে নেমেছে।যারা এই পেঁয়াজের মূল্য বাড়িয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার। মানুষকে জিম্মি করে এভাবে ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়ানো কোনোভাবেই ব্যবসার নীতি হতে পারে না।বিএনপি যে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে অপরাজনীতি থেকে পেঁয়াজে আশ্রয় নিয়েছে, এটি ভালো। আপনারা অবশ্যই সরকারের সমালোচনা করুন।সরকারের ব্যর্থতা তুলে ধরুন। কিন্তু সরকার যে ক্ষেত্রে সফল, সেটি আন্তর্জাতিক মহল থেকে প্রশংসিত। তাই আপনারা করবেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহে আলম মুরাদ, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, ভাসানী ঐক্যজোটের সভাপতি এম এ ভাসানী প্রমুখ।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com