মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
এই সরকার বাংলাদেশকে চরম অবক্ষয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছে – ডা. শাহাদাত এডিস মশার বংশ বিস্তার রোধে অভিযান ৪ ব্যক্তিকে ১৮ হাজার টাকা জরিমানা পরিকল্পিত আবাসন গড়ার মাধ্যমে নিরাপদ ও বাসযোগ্য নগরী গড়তে হবে দেশে ফিরলেন সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী জুলধা রোহান ডেইরী ফার্মের গরু বিক্রির ২লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করতেই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির নাটক ! সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে কন্যা শিশুদের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করা অপরিহার্য : প্রধানমন্ত্রী দেশে সাম্প্রাদায়িক সম্প্রতি বজায় রাখতে সরকার বদ্ধপরিকর : আইনমন্ত্রী দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যু পূজায় জঙ্গি হামলার কোনো হুমকি নেই : র‌্যাব ডিজি সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হবে : কৃষিমন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভূলন্ঠিত করেছিলেন খালেদা জিয়া : আমু

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু বলেছেন, স্বাধীনতা বিরোধীদের নিয়ে দল, জোট ও সরকার গঠন করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভূলন্ঠিত করেছিলেন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া স্বাধীনতা বিরোধীদের নিয়ে দল গঠন, চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধী নিজামী, মুজাহিদদের নিয়ে জোট ও সরকার গঠন করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভূলন্ঠিত করেছেন। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনী ও যুদ্ধাপরাধীদের যেভাবে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে পুনর্বাসন করেছেন, তারই ধারাবাহিকতায় একই পথে হেঁটেছেন বেগম জিয়া। আমির হোসেন আমু আজ রোববার সকালে বারডেম হাসাপাতাল মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস ২০২২ উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু পরিষদ বারডেম আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের প্রবীন এই নেতা বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের পর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধীদের বিভিন্নভাবে পুনর্বাসন, খুনীদের বিভিন্ন কূটনৈতিক মিশনে পদায়ন, তাদের দিয়ে ফ্রিডম পার্টি গঠন, খুনী ও চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের মন্ত্রীসভায় ঠাঁই দিয়ে বাংলাদেশকে নব্য পাকিস্তান বানাতে সব ধরনের চেষ্টা ছিল জিয়া ও খালেদা জিয়ার আমলে। তিনি বলেন, তাদের এসব কর্মকান্ডে প্রমাণিত বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ড ব্যক্তি কিংবা পারিবারিক হত্যাকান্ড ছিল না। বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব নস্যাৎ করে এই দেশকে আবারও পাকিস্তানী ভাবধারায় ফিরিয়ে নেওয়াই ছিল ঘাতকদের মূল লক্ষ্য।
বঙ্গবন্ধু পরিষদ, বারডেম শাখার সভাপতি মীর নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খান, মহাসচিব মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক রশিদ-ই-মাহবুব, বারডেম জেনারেল হাসপাতালের মহাপরিচালক অধ্যাপক এম কে আই কাইয়ুম চৌধুরী, ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু, অধ্যাপক ডা.পুরবী রানী দেবনাথ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
বিএম মোজাম্মেল হক বলেন, আওয়ামী লীগের শিকড় অনেক গভীরে। আন্দোলন-সংগ্রামে জনগনের সাড়া না পেয়ে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে সাথে নিয়ে বিদেশীদের কাছে ধর্না দিয়ে সরকারের বিরূদ্ধে ষড়যন্ত্র ও অপ্রচারের পথ বেছে নিয়েছে বিএনপি। তারা বাঁকা পথে ক্ষমতায় যাওয়ার দিবা স্বপ্ন দেখছে।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com