শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
৪ই ডিসেম্বর চট্টগ্রামের রাস্তাঘাটে মানুষের সরব উপস্থিতি থাকবে – হুইপ স্বপন দ্বিতীয় রাউন্ডে মুখোমুখি জাপান-ক্রোয়েশিয়া, স্পেন-মরক্কো পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির ২৫ বছর আজ গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় জার্মানির চট্টগ্রামের জনসভায় স্বতস্ফুর্তভাবে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাবে ফটিকছড়িবাসী পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশের সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে সরকার বদ্ধপরিকর : প্রধানমন্ত্রী বিশ্বব্যাপী সঙ্কট থাকা সত্ত্বেও ২০২২ সালে রেমিট্যান্স ৫% বৃদ্ধি পেয়েছে : বিশ্বব্যাংক সুদের সীমা যথা সময়ে তুলে নেওয়া হবে : বিবি গভর্নর বিদেশ ফেরত কর্মীদের এইচআইভি পরীক্ষা করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাওয়া ভবন থেকে পাচার হওয়া টাকা ফেরত আনা হবে : ওবায়দুল কাদের

পদ্মা বহুমুখী সেতুতে রেল লাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন

পদ্মা সেতুতে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত রেল লাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন এমপি আজ সকালে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে পদ্মা সেতুর নিচে রেল অংশে রেললাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন । এ সময় জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

নূরুল ইসলাম সূজন এ সময় বলেন, পদ্মা সেতু চালু হলেও এতদিন মূল সেতুতে রেললাইন বসানোর কাজ শুরু করার অনুমতি ছিল না । আমরা এখন সে সুযোগ পেয়েছি।

তিনি আরো বলেন, সেতু কর্তৃপক্ষ আমাদের অনুমোদন দেওয়ায় সেতুতে রেললাইন বসানোর কাজ শুরু করা হলো।

আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই মূল সেতুতে রেল লাইন বসানোর কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্প ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত ১৬৯ কিলোমিটার। কাজের সুবিধার জন্য এটিকে ৩ ভাগে ভাগ করা হয়েছে । ঢাকা থেকে মাওয়া , মাওয়া থেকে ভাঙ্গা এবং ভাঙ্গা থেকে যশোর পর্যন্ত। তিনি জানান, আগামী বছর জুনের মধ্যে ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত রেল সংযোগ চালু করা সম্ভব হবে। ভাঙ্গা থেকে পুরনো লাইনের মাধ্যমে মানুষ কুষ্টিয়া হয়ে খুলনা পর্যন্ত যোগাযোগ করতে সক্ষম হবে। যদিও পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের মেয়াদ ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত ধরা আছে।
কাজের অগ্রগতি তুলে ধরে তিনি বলেন, ঢাকা-মাওয়া অংশের কাজের অগ্রগতি ৬৪ শতাংশ। মাওয়া -ভাঙ্গা অংশের অগ্রগতি ৮২ শতাংশ এবং ভাঙ্গা – যশোর অংশের অগ্রগতি ৫৩ শতাংশ ও সার্বিক অগ্রগতি ৬২ শতাংশ।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে ১০০ টি কোচ আসবে। আর এ সকল কোচ দিয়ে পাঁচটি ট্রেন চালানো সম্ভব হবে।

পরে মন্ত্রী ভাঙ্গা জংশন স্টেশনে রেল লাইন স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন।

এছাড়াও পরিদর্শনের সময় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো. হুমায়ুন কবীর, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অবকাঠামো) মো. কামরুল আহসান, প্রকল্প পরিচালক মো. আফজাল হোসেন, কনস্ট্রাকশন সুপারভিশন সার্ভিস সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com