সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ১১:৫৯ অপরাহ্ন

নওজোয়ানের প্রধান নির্বাহী ইমাম হোসেন জেল হাজতে

ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড , সেন্ট্রাল প্লাজা, নানুপুর বাজার, ফটিকছড়ি, শাখার পাওনা তিন কোটি সাতত্রিশ লক্ষ চল্লিশ হাজার একশত বিশ টাকা আটাত্তর পয়সা (৩,৩৭,৪০,১২০.৭৮ ) খেলাপী ঋণ  পরিশোধ না করে হাজিরা দিতে আসেন নওজোয়ানের প্রধান নির্বাহী মোঃ ইমাম হোসেন চৌধুরী।তাকে  সরাসরি এজলাস থেকে জেল হাজতে প্রেরণের নিদের্শ ও ৫ মাসের  আটকাদেশ প্রদান  করেন চট্টগ্রাম অর্থঋণ আদালতের বিচারক মুজাহিদুর রহমান।

তিনি আজ    বৃহস্পতি (২১শে জুলাই) বিকেলে এই সাজা দেন ।

অর্থ ঋণ আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. রেজাউল করিম এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ঋণখেলাপি মামলায় নওজোয়ানের প্রধান নির্বাহী মোঃ ইমাম হোসেন চৌধুরী হাজিরা দিতে আসলে এজলাস থেকে   হাজতে প্রেরণের নিদের্শ ও ৫ মাসের  আটকাদেশ প্রদান  করেন চট্টগ্রাম অর্থঋণ আদালতের বিচারক মুজাহিদুর রহমান।

আদালত সুত্রে জানা যায়, ওয়ান ব্যাংক লিঃ , নানুপুর বাজার শাখার দায়েরকৃত মূল অর্থঋণ মামলা নং -৪১ / ২০১৮ এর ১৬/০৫/২০১৯ ইং ডিক্রি থেকে এই জারি মামলার উদ্ভব । ব্যাংক দায়িকগণের বিরুদ্ধে ৩,৩৭,৪০,১২০.৭৮ টাকা আদায়ের দাবীতে এই জারি মামলা  করেন । দায়িকগণ উক্ত দায় পরিশোধে এগিয়ে আসছেনা ।  দায়িকগণের বন্ধকী সম্পত্তি ইতোপূর্বে নিলাম হওয়ার পরেও দরপত্র পাওয়া না যাওয়ায় বন্ধকী সম্পত্তি বিক্রয় করা সম্ভব হয়নি । ডিক্রিদার ব্যাংক হলফনামা সহকারে অর্থঋণ আইনের ৩৪ ( ৯ ) ধারা মোতাবেক দায়িকগণের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরওয়ানা জারি করার আবেদন করেন । এই জারি মামলা দায়ের হওয়ার প্রায় ৩ বছরের অধিককাল অতিক্রান্ত হলেও দায়িকগণ ডিক্রিদারের কোন পাওনা পরিশোধ না করায় বিপুল পরিমাণ খেলাপী ঋণ আদায়ে বাধ্য করার প্রয়াস হিসেবে ডিক্রিদারের ৩৪ ( ৯ ) ধারার দরখাস্ত আংশিক মঞ্জুরক্রমে ৩ নং দায়িক মোঃ ইমাম হোসাইন চৌধুরী কে ৫ মাসের দেওয়ানী আটকাদেশ প্রদান করা হলো । আদালতে উপস্হিত ৩ নং দায়িক মোঃ ইমাম হোসেন চৌধুরী কে সাজা পরোয়ান মূলে জেল হাজতে প্রেরণ করা হোক ।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com