রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১১:০০ অপরাহ্ন

শিরোনাম
আওয়ামী লীগ নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে চায় : প্রধানমন্ত্রী বিদেশী রাষ্ট্রের সহযোগিতা পেলে পাচারকৃত অর্থ উদ্ধার করা সম্ভব : দুদক মহাপরিচালক রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠায় ইসি চেষ্টা চালিয়ে যাবে : সিইসি পদ্মা সেতু নির্মাণের সব কৃতিত্ব বাংলাদেশের জনগণের : প্রধানমন্ত্রী বিএনপি জনগণের বিষয় নিয়ে আন্দোলন করে না : তথ্যমন্ত্রী আওয়ামী লীগ জনকল্যাণের রাজনীতি করে : ওবায়দুল কাদের চট্টগ্রাম ই-শপ বিজনেস কমিউনিটি উদ্বোধন কৃতী সম্পাদক অধ্যাপক মরহুম আফজল মতিন সিদ্দিকী দৈনিক পূর্বতারা’র প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক মরহুম অধ্যাপক আফজল মতিন সিদ্দিকীর ১৪ম মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল ডি ওয়াই ডি এফ এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় সম্মেলন ও এওয়ার্ড ফাংশন-২০২২ সম্পন্ন

চট্টগ্রাম নগরকে সবুজায়নের ধারায় ফিরে আনতে নগরবাসীকে উদ্বুব্ধ করার জন্যই নান্দনিক চট্টগ্রাম মেয়র এ্যাওয়ার্ড

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, প্রকৃতি ও মানব সভ্যতা একে অপরের পরিপুরক। প্রকৃতিকে রক্ষা করতে না পারলে প্রকৃতি আমাদের প্রতি প্রতিশোধ পরায়ন হবে। তাই প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষ রোপনের বিকল্প নেই। বর্ষা মৌসুম হচ্ছে বৃক্ষরোপনের আদর্শ সময়। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য টেকসই বাঙলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে ব্যাপকভাবে বনায়নের আহবান জানিয়েছেন। এই আহŸান সাড়া দিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ইতোমধ্যে বৃক্ষরোপনে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, নগরকে সবুজায়নের ধারায় ধরে রাখতে নগরবাসীকে আরো উদ্বুব্ধ করার জন্য ‘নান্দনিক চট্টগ্রাম মেয়র এ্যাওয়ার্ড” ও সবুজ মেলার আয়োজন করা হবে। নগরবাসী যাতে নিজ নিজ আঙ্গিনায় বৃক্ষ রোপনে এগিয়ে আসে সেই লক্ষ্যেই একর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। আজ বিকেলে আন্দরকিল্লা সিটি কর্পোরেশন পুরাতন ভবনের কে.বি আবদুচ সাত্তার মিলনায়তনে নান্দনিক চট্টগ্রাম মেয়র এ্যাওয়ার্ড প্রবর্তণ উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন।
এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন-প্যানেল মেয়র মো.গিয়াস উদ্দিন, নগর পরিকল্পনা স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি ওয়ার্ড কাউন্সিলর ওয়াসিম উদ্দিন চৌধুরী, মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, তিলোত্তমার প্রতিষ্ঠাতা সাহেলা আবেদীন, তানভির শাহরিয়ার প্রমুখ।
মেয়র আরো বলেন, এক সময় চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম শহরের অনেক এলাকায় মিনি পার্ক ও উম্মুক্ত খেলার মাঠ ছিল। এই নগর যান্ত্রিক ও দালান কোঠায় পুরিপূর্ণ হয়ে উম্মুক্ত জায়গা এখন বিলিন। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা বিবেচনায় চসিক নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে খালি জায়গা খুঁজে বের করে সেখানে খেলার মাঠ, মিনি পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্র স্থাপনের ব্যবস্থা করা হবে। তিনি কাউন্সিলদের তাদের নিজ নিজ এলাকার জনসাধারণকে তাদের বাড়ির ছাদ ও আঙ্গিণায় বাগান করতে উদ্বুদ্ধ করার আহŸান জানান।
সংবাদ সম্মেলনের পর মেয়র চসিক নগর পরিকল্পনা শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বাগান মালিদের সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন। মেয়র তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, নগরীর সড়কের দু’পাশ, মধ্যবর্তী স্থান, গোল চত্বর, চসিকের স্কুল, কলেজ, অফিসসহ সকল স্থাপনায় পরিকল্পিতা ভাবে সবুজায়ন করতে হবে। সবুজায়িত গাছগুলোর পরিচর্চা, পানি ছিটানোসহ আন্তরিকতার সাথে সার্বিক দেখভালে নির্দেশনা দেন এবং এই কাজে নিয়োজিতদের প্রশিক্ষণ প্রদানে বিষয়ও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, প্রশিক্ষিত জনবলই পারবে নগরীর হারানো সবুজের সৌন্দর্য্য ফিরে আনতে।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com