বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০২:০০ অপরাহ্ন

শিরোনাম
চুয়েটে আজ উদ্বোধন হচ্ছে দেশের প্রথম আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর আজ অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদ-এর জন্মশতবার্ষিকী বিএনপি’র আন্দোলনের হুমকি নিয়ে আমাদের মাথা ব্যথা নেই: ওবায়দুল কাদের চামড়ার মূল্য নির্ধারণ সব কারাগার ও থানায় বায়োমেট্রিক পদ্ধতি চালু করতে হাইকোর্টের রায় মক্কা নগরীতে হজ্জ মেডিকেল সেন্টার পরিদর্শন করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সময়োপযোগী পরিবর্তনকে ধারণ করে পোশাক মালিকরা সমৃদ্ধ দেশ গঠনে অবদান রাখবে : স্পিকার অধিক ফসল উৎপাদন করার ও বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জনগণের ভোটাধিকার রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলন ৭ জুলাই

ক্ষুব্দ জনতার হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন জিতেন গুহ

চট্টগ্রামের পটিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহারের ঘর বন্টনে এক আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুনীর্তির অভিযোগ ওঠেছে। তার অপকর্মের ভিডিও ভাইরাল হওয়ায় দলীয় পদ থেকে সেসময় অব্যাহতি এবং ওই নেতার কর্মকান্ডে বিক্ষুদ্ধ জনগনের হাতে সম্প্রতি লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইন্দ্রজিত চৌধুরীর স্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে ওই ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি জিতেন কান্তি গুহের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুনীর্তিসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলেন।

সংবাদ সম্মেলনে সুর্বনা দাশ, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিএম জসিমের স্ত্রী কানিজ ফাতেমা, চেয়ারম্যানের মা মজুনা বেগম, ছেলে মেজবাহ উদ্দিন ও ইমতিয়াজ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে সুর্বনা দাশ বলেন, হাইদগাঁও ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দরিদ্র মানুষের জন্য ৪০টি ঘর উপহার দিয়েছেন। এ ঘর বন্টনে দরিদ্র মানুষের কাছ থেকে ৫০হাজার থেকে শুরু করে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত নিয়েছেন। যারা টাকা দিতে পারেনি তাদের তালিকা থেকে বাদসহ বিভিন্ন হুমকি ধমকি প্রদান করেন এবং কৌশলে দরিদ্র মানুষের থেকে টাকা হাতিয়ে নেন। টাকা নেওয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হলে আওয়ামীলীগ নেতা জিতেনকে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। জিতেন পদ হারানোর পর থেকে এলাকায় জায়গা দখল থেকে শুরু করে কিশোরগ্যাং এর মাধ্যমে নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়েন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি দাবি করেন, জিতেনের অপকর্মে অতিষ্ঠরা গত ২৯ এপ্রিল একটি অনুষ্ঠানে তাকে পেয়ে ক্ষুব্ধ লোকজন লাঞ্ছিত করেন। এ ঘটনার খবর পেয়ে ২০ মিনিট পর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিএম জসিমসহ ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পরর্বতীতে সুর্বনার স্বামী ইন্দ্রজিত চৌধুরী ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়েন করেন। জিতেনের গুন্ডাবাহিনীর হাতে এলাকার লোকজন জিম্মি। কেউ প্রতিবদা করলে তাদেরকে মিথ্যা মামলা, হুমকি ধমকি দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জিতেনকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com