বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
বোর্ডের সনদ পাবে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিন নগর  মৎস্যজীবী লীগের উদ্যেগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম  জন্মদিন উদযাপন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকীতে চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ভার্চুয়াল সম্মেলনে মেয়র শেখ হাসিনা বাঙালীর আস্থা ও বিশ্বাসের ঠিকানা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে শেখ হাসিনাকে অমৃত্য ক্ষমতায় দেখতে চাই – খোকন চৌধুরী গোলাম আকবর খোন্দকারের নেতৃত্বে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনসমূহের নেতা কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ সাদিয়ার মরদেহ উদ্ধার রেল কারখানায় টেন্ডারের আড়ালে দ্বিগুন স্ক্র্যাপ ভাগিয়ে নিচ্ছেন এসএ করপোরেশন শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ

মুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর হোসেন চৌধুরীর স্মরণ সভা

শনিবার ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৩ টায় ফটিকছড়ি, নাজিরহাট পৌরসভাস্থ মধ্য দৌলতপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে ছায়াপথ মানবাধিকার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের প্রধান, ডাক্তার আখতারুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সামশুল করিম লাভলুর সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন এর আহবায়ক মার্শেল কবির পান্নু। প্রধান বক্তা ছিলেন কলামিস্ট সমাজ সেবক সাবেক ছাত্র নেতা এ কে জহেদ চৌধুরী। প্রধান আলোচক ফটিকছড়ি উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার খায়রুল বশর চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, নেপ, কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম, শিক্ষা পর্যবেক্ষণ কাউন্সিলের চেয়ারম্যান গবেষক ও সংগঠক মাহমুদুল হক আনসারী, চট্টগ্রাম জেলা বঙ্গবন্ধু পেশাজীবি পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম উদ্দীন চৌধুরী, নাজিরহাট পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল হক বাবুল, সাবেক ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এজাহার চৌধুরী, আলোকিত ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা এইচ এম আবদুল্লাহ, সাংবাদিক সরওয়ার হোসেন চৌধুরী মানিক প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মরহুমের পরিবারের সদস্য এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করেন হাফেজ মোহাম্মদ আব্দুল করিম। প্রধান অতিথি বলেন, প্রত্যেক মানুষকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহন করতে হবে। প্রক্তির এই অলঙ্ঘনীয় নিয়মে বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর হোসেন চৌধুরী আমাদের নিকট থেকে বিদায় নিয়েছে। তথা যাওয়ার নিরন্তর প্রবাহ মান তায় তার চলে যাওয়ার প্রয়োজন ছিল নিশ্চয়ই। তবে জীবদ্দশায় দেশমাতৃকার প্রতিদায়িত্ব ও দেশের মানুষের প্রতি মানত্ববোধের যে উজ্জল দৃষ্টান্ত তিনি রেখে গেছেন তা বিনম্র শ্রদ্ধায় স্বরণ করতে কুৎসিত বোধ করলে আমরা শুধু তার প্রতি অবিচার কারা হবে ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছ থেকেও আমরা নিসন্দেহে এমনি ব্যবহারই আশংকা করবো। ১৯৬৯ সালে পূর্ব বাংলা তথা পূর্ব পাকিস্তাননের সকল শহর গ্রাম জন পদে উত্তাল সমূদ্রের গগন বিদারী গর্জন। রাজপথ, জনপদ, ছাত্র, শ্রমিক, কৃষক জনতার পদভারে প্রকম্পিত। আয়ুব সরকারের পতন তখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। ঠিক এ সময়ে নাজিরহাট কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়া টকবকে তরুন জাহাঙ্গীর ছাত্র লীগের সামনের কাতারের নেতা হিসেবে আশপাশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করার কাজে নিয়োজিত। এই সময় আইয়ুব সরকারের পতনের পথ ধরে ক্ষমতা শাসনের অবতর ইয়াহিয়া খান এর আবির্ভাব। শেখ মুজিবের কন্ঠনিঃসৃত জলদ গম্ভীর ভাষণ এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম মুক্তি পাগল অসংখ্য দামাল ছেলেদের মত রক্ত আগুনের পরশমনি ছুইয়ে দিল।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com