রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম
আওয়ামী লীগ নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে চায় : প্রধানমন্ত্রী বিদেশী রাষ্ট্রের সহযোগিতা পেলে পাচারকৃত অর্থ উদ্ধার করা সম্ভব : দুদক মহাপরিচালক রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠায় ইসি চেষ্টা চালিয়ে যাবে : সিইসি পদ্মা সেতু নির্মাণের সব কৃতিত্ব বাংলাদেশের জনগণের : প্রধানমন্ত্রী বিএনপি জনগণের বিষয় নিয়ে আন্দোলন করে না : তথ্যমন্ত্রী আওয়ামী লীগ জনকল্যাণের রাজনীতি করে : ওবায়দুল কাদের চট্টগ্রাম ই-শপ বিজনেস কমিউনিটি উদ্বোধন কৃতী সম্পাদক অধ্যাপক মরহুম আফজল মতিন সিদ্দিকী দৈনিক পূর্বতারা’র প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক মরহুম অধ্যাপক আফজল মতিন সিদ্দিকীর ১৪ম মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল ডি ওয়াই ডি এফ এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় সম্মেলন ও এওয়ার্ড ফাংশন-২০২২ সম্পন্ন

১৪ উপজেলায় ১২ লাখ শিশুকে দেওয়া হবে হাম-রুবেলা টিকা

আগামী ১২ ডিসেম্বর শনিবার থেকে ২৪ জানুয়ারী ২০২১ ইংরেজি পর্যন্ত ৬ সপ্তাহব্যাপী হাম-রুবেলা (এমআর) ক্যাম্পেইন-২০২০। এ সময়ে মাস্ক পরিধানসহ সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী সকল শিশুকে ১ ডোজ এমআর টিকা প্রদান করা চট্টগ্রাম জেলার ১৪ উপজেলার ৪৮৪৩ টি কেন্দ্রে মোট ১২ লক্ষ ৭ হাজার ১৪৮ জন।

 আজ   ১০ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় নগরীর আন্দরকিল্লাস্থ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রেস কনফারেন্স (সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়) এই তথ্য জানান সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি  । 

সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, বিগত ১৮ মার্চ থেকে ১১ এপ্রিল ২০২০ ইংরেজি পর্যন্ত সারাদেশে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেও কোভিড-১৯ পরিস্থিতিরি কারণে ক্যাম্পেইন কার্যক্রম যথাসময়ে পরিচালনা করা সম্ভবপর হয়নি। এবার আগামী ১২ ডিসেম্বর শনিবার থেকে ২৪ জানুয়ারী পর্যন্ত অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে ৬ সপ্তাহব্যাপী হাম-রুবেলা (এমআর) ক্যাম্পেইন-২০২০। চট্টগ্রাম জেলার ১৪ উপজেলার ২০০টি ইউনিয়নের ৬০০ ওয়ার্ডেও মোট ৪৮৪৩ টি কেন্দ্রে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও নিরাপদ দুরত্ব বজায় রেখে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী  মোট  ১২ লক্ষ ৭ হাজার ১৪৮ জন শিশুকে হাম-রুবেলার টিকা প্রদানের লক্ষ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। উপজেলার সর্বত্র মাইকিং করা হচ্ছে। যে সকল শিশু ইতোপূর্বে হাম-রুবেলার টিকা গ্রহন করেছে সে সকল শিশুদেরকেও ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে ১ ডোজ টিকা অতিরিক্ত হিসেবে নিতে হবে। প্রতিটি কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত শিশুদেরকে এমআর টিকা প্রদান করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়নির্দিষ্ট বয়সের কোনো শিশু আগে হাম-রুবেলা টিকা পেলেও ক্যাম্পেইন চলাকালে ১ ডোজ টিকা অতিরিক্ত হিসেবে নিতে হবে। টিকাদান কেন্দ্রে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, কমপক্ষে ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রাখা ও মুখে মাস্ক রাখতে হবে। হাম সাধারণত আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা অন্যদের মধ্যে হাঁচি কাশির মাধ্যমে ছড়ায়। শিশু ছাড়াও যেকোনো বয়সে হাম হতে পারে। রুবেলা রোগের জীবাণু প্রধানত বাতাসের সাহায্যে শ্বাসতন্ত্রের মাধ্যমে সুস্থ শরীরে প্রবেশ করে এবং লক্ষণ দেখা দেয়। 

 তিনি  আরো জানিয়েছেন, গর্ভবতী মায়েরা গর্ভের ৩ মাসের সময় রুবেলা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ৯০ ভাগ ক্ষেত্রে মা থেকে গর্ভের শিশু আক্রান্ত হতে পারে। সেক্ষেত্রে গর্ভপাত এমনকি গর্ভের শিশুর মৃত্যুও হতে পারে। শিশু জন্মগত বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে জন্মগ্রহণ করে যা কনজেনিটাল রুবেলা সিনড্রোম (সিআরএস) নামে পরিচিত।কোন শিশু পোলিও  টিকা থেকে বাদ পড়লে অন্যরা ও পোলিও   রোগে আক্রান্ত  হওয়ার ঝুঁকির মধ্যে থাকে । তদরূপ কোন শিশু এমআর   টিকা না পেলে অন্যরা ও তার মতো হাম – রুবেলা রোগের ঝুঁকির মধ্যে থাকে । তাই সময় মত টিকা গ্রহণ করে হাম – রুবেলা রোগের প্রতিরোধ   করা যায়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. আসিফ খান, জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. মোহাম্মদ নুরুল হায়দার ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এসআইএমও ডা. মোঃ জাহিদ। জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়া।

খবরটি অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved dainikshokalerchattogram.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com